এই তরুণরা মেসিকে ধাওয়া করছেন!

রিয়াল মাদ্রিদ থেকে এই মৌসুমে ধারে লেগানেসে খেলতে গেছেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার অস্কার রদ্রিগেজ। এমনই পারফরম্যান্স তাঁর, জিদানের চোখে পড়তেই পারেন তিনি।

ফ্রি-কিক থেকে গোল করার ক্ষেত্রে লিওনেল মেসির জুড়ি নেই। এমনকি এই মৌসুমেও এর মধ্যে ফ্রি-কিক থেকে চারটা গোল করে ফেলেছেন তিনি। রোনালদো চলে গেছেন জুভেন্টাসে, লিগে ফ্রি-কিকের দিক দিয়ে মেসির সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার খেলোয়াড় নেই—এমনটা মনে হলেও রিয়াল মাদ্রিদের এক তরুণ এর মধ্যেই ফ্রি-কিকের দক্ষতায় নজর কাড়ছেন সবার। তাঁর নাম অস্কার রদ্রিগেজ।

রিয়াল মাদ্রিদে আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডারের অভাব নেই। হামেস রদ্রিগেজ আছেন, আছেন ইসকো। টনি ক্রুসও মাঝেমধ্যে ওপরে খেলে থাকেন। মূল একাদশে অস্কার রদ্রিগেজের সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা কমই ছিল। যে কারণে এই মৌসুমে রিয়াল থেকে লেগানেসে ধারে নাম লিখিয়েছেন তিনি।

আর সেখানে গিয়েই নিজের জাত চেনাচ্ছেন তিনি। ২১ বছর বয়সের এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এর মধ্যেই লিগে ফ্রি-কিক থেকে তিন-তিনটি গোল করেছেন। যার সর্বশেষটা এসেছে গতকাল, রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে।

ম্যাচে তখন ১-১ গোলের সমতা। ৯০ মিনিট পেরোনোর পর যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে বক্সের বাইরে একটা ফ্রি-কিক পেল লেগানেস। যথারীতি ফ্রি-কিক নিতে এলেন অস্কার রদ্রিগেজ।

সেই ফ্রি-কিক থেকে গোল করে একদম শেষ মুহূর্তে দলকে এনে দিলেন আকাঙ্ক্ষিত এক জয়, এনে দিলেন পূর্ণ ৩ পয়েন্ট। আর এই গোলের মাধ্যমে মেসির আরেকটু কাছে চলে এলেন তিনি। ফ্রি-কিক থেকে আর একটা গোল করতে পারলে এই মৌসুমে মেসির পাশে দাঁড়াতে পারবেন তিনি।

রিয়াল মাদ্রিদ যুবদলের এই খেলোয়াড়কে মূল দলে নিয়ে আসেন রিয়ালের সাবেক কোচ সান্তিয়াগো সোলারি। যুবদলে থেকেই অস্কারকে চিনতেন সোলারি, তাই মূল দলেও নিয়মিত সুযোগ দেবেন প্রিয় শিষ্যকে, এমনটাই মনে করা হচ্ছিল।

সে আশায় রিয়ালের সঙ্গে ২০২৩ সাল পর্যন্ত চুক্তিও নবায়ন করেছিলেন। কিন্তু বাজে পারফরম্যান্সের মাশুল দিয়ে রিয়াল ছেড়ে চলে যান সোলারি, অস্কারের ভবিষ্যৎও হয়ে পড়ে অনিশ্চিত। দুই বছর ধরে তাই লেগানেসেই খেলছেন, ধারে।

তবে যেমন খেলছেন, আগামী মৌসুমে লেগানেসে থাকা নাও লাগতে পারে তাঁর। মৌসুম শেষে জিদান তাঁকে ডেকে নিয়ে গেলেও আশ্চর্য হওয়ার কিছুই থাকবে না।

Reply